বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ০৫:২৪ পূর্বাহ্ন




টিআরপি নির্ধারণে কমিটি করা হবে বলেছেন তথ্যমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার 
  • Update Time : শুক্রবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ১৩০ Time View

ওটিটি বা ইন্টারনেট প্ল্যাটফর্মে কন্টেন্ট প্রদর্শন দেশ, সমাজ তথা বৈশ্বিক বাস্তবতা এবং সহজে ব্যবহারযোগ্য হওয়ায় এর সঙ্গে মানুষের সংযোগ ক্রমাগত বাড়ছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। তিনি বলেছেন, ‘আমাদের উদ্দেশ্য এই প্ল্যাটফর্মকে বাধাগ্রস্ত করা নয়, বরং প্রতিবন্ধকতাগুলো দূর করা।’

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেন, অনেক সময় ওটিটি প্ল্যাটফর্মের কিছু কিছু কন্টেন্টের কারণে রাষ্ট্র ও সমাজের স্থিতি বিনষ্টের উপক্রম হতে দেখা গেছে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ওটিটি-সংক্রান্ত নীতিমালা প্রণয়নে কমিটি গঠনের পর এবার টেলিভিশন রেটিং পয়েন্ট বা টিআরপি নির্ধারণ প্রক্রিয়ার বিষয়ে কমিটি গঠন করা হবে। আগামী সপ্তাহ নাগাদ এই কমিটি গঠন চূড়ান্ত হবে বলে তিনি জানান।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আমরা ঠিক সেভাবে করতে চাই না। ওটিটি প্ল্যাটফর্মে প্রদর্শিত কন্টেন্টগুলো আমাদের কৃষ্টি, সংস্কৃতি, ঐতিহ্য ও মূল্যবোধের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হওয়ার বিষয়ে বিভিন্ন অংশীজনের সঙ্গে বৈঠক করেছি। সমস্ত কন্টেন্ট সেন্সরের মাধ্যমে যেতে হলে প্রতিবন্ধকতা তৈরি হবে এবং এ কাজের জন্য যে লোকবলের প্রয়োজন, সেটিও সহজসাধ্য নয়। এ জন্য একটি নীতিমালার প্রয়োজন, যার ব্যত্যয় হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া যায়। সেটিই দেশের মানুষ ও অংশীজনদের কাম্য। সে কারণেই এ বিষয়ে নীতিমালা প্রণয়নে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবের (সম্প্রচার) নেতৃত্বে সরকারি-বেসরকারি অংশীজনদের নিয়ে ১৫ সদস্যবিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।’

টিআরপি নির্ধারণে বিরাট অসামঞ্জস্য রয়ে গেছে উল্লেখ করে এ বিষয়ে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আমরা ইতিপূর্বেও বলেছি, টিআরপি নির্ধারণে বিরাট অসামঞ্জস্য রয়েছে। রাষ্ট্রীয় অনুমতি ছাড়া কোনো বেসরকারি সংস্থা টিআরপি দেওয়ার কোনো এখতিয়ার রাখে না। সুতরাং এটি নিয়মনীতির মধ্যে আসা প্রয়োজন।’

মন্ত্রী বলেন, ‘টিআরপি নির্ধারণ কৌশল প্রণয়নের জন্য আগামী সপ্তাহে অংশীজনদের নিয়ে একটি কমিটি গঠন করে দেব। সেই কমিটিই নির্ধারণ করবে কীভাবে টিআরপি নির্ধারিত হবে।’ হাছান মাহমুদ আরও বলেন, ‘আপনারা জানেন যে কেব্‌ল সংযোগে আগে টেলিভিশনের ক্রম ঠিক ছিল না, সেই ক্রম প্রতিষ্ঠিত হয়েছে এবং সেটি মানা হচ্ছে। টিআরপির ক্ষেত্রেও নানা ধরনের অসংগতি লক্ষ করা যায় এবং কীভাবে টিআরপি নির্ধারিত হয়, সে নিয়েও অনেক প্রশ্ন অনেকে উত্থাপন করে, যেগুলোর নিরসন হওয়া প্রয়োজন।’




Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category




© All rights reserved © 2020 faithnewsbd.com
Design & Developed by: ATOZ IT HOST
Tuhin